ঝিনাইগাতীতে পাহাড় কেটে পাথর ও বালু লুটপাটের মহোৎসব

দ্বারা hello@anbnews24.com
ঝিনাইগাতীতে পাহাড় কেটে পাথর ও বালু লুটপাটের মহোৎসব

 ঝিনাইগাতী (শেরপুর)  ঝিনাইগাতীতে পাহাড় কেটে পাথর ও নদী থেকে বালু লুটপাটের মহোৎসব চলছে। স্হানীয় বালুদস্যুরা সংরক্ষিত বনের মাঝ দিয়ে প্রবাহিত নদী ও ছড়া থেকে পাথর ও বালু লুটপাট করে আসছে। প্রতিদিন লাখ লাখ টাকা মুল্যের পাথর ও বালু লুটপাট করে দেশের বিভিন্ন স্থানে পাহাড় কেটে পাথর ও বালু লুটপাটের ফলে গারো পাহাড়ের সৌন্দর্য় ও প্রাকৃতিক ভারসাম্য হুমকির সম্মুখিন হয়ে পরেছে।
সরেজমিনে অনুসন্ধানে গিয়ে দেখা গেছে, গারো পাহাড়ের হালচাটি, গজনী, ছোটগজনী বাকাকুড়াসহ বিভিন্ন স্হানে বনবিভাগের পাহাড় কেটে উত্তোলন করা হচ্ছে পাথর ও বালু।এছাড়া সোমেশ্বরী নদীর তাওয়াকোচা,বালিজুড়ি, খাড়ামুড়া এলাকায় অর্ধশতাধিক ড্রেজার মেশিন বসিয়ে দীর্ঘদিন থেকে বালু লুটপাট করে আসছে বালু দস্যুরা। খাড়ামুড়া গ্রামের সাইফুল ইসলাম, বালিজুড়ি গ্রামের মোরশেদ আলমসহ গ্রামবাসীরা জানান, বালুদস্যুদের থাবায় ক্ষতবিক্ষত হয়ে পরেছে নদীর দু পার। তারা আরো জানান,বালু লুটপাট বন্ধে মাঝে মধ্যে প্রশাসনের পক্ষথেকে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ভেঙ্গে দেয়া হয় বালু উত্তোলন যন্ত্র। কিন্তু প্রশাসনের লোকজন চলে আসার পর আবারও পুরোদমে শুরু হয় বালু উত্তোলন।

গত ৪জুন ঝিনাইগাতী উপজেলা নির্বাহী অফিসার রুবেল মাহমুদ, শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিলুফা আক্তারের নেতৃত্বে অভিযান পরিচালনা করা হয়। ভেঙ্গে দেয়া হয় ৯ টি বালু উত্তোলন যন্ত্র। কিন্তু প্রশাসনের লোকজন ঘটনাস্হল ত্যাগ করার সাথে সাথেই আবার ও শুরু হয় বালু উত্তোলন। অভিযোগ রয়েছে, বালুদস্যুরা, ক্ষমতাসীনদলের ছত্রছায়ায় থেকে পাথর ও বালু লুটপাট করায় এদের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদতো দুরের কথা মুখ পর্যন্ত খুলতে সাহস পায় না। এ কারণে অভিযান চালিয়ে উত্তোলন যন্ত্র ধ্বংস করা হলেও মামলা হয় না কোন বালুদস্যুদের বিরুদ্ধে। গত ৯ জুন শেরপুরের সহকারি বন সংরক্ষক ড,প্রানতোষ চন্দ্র রায় চালচাটি এলাকা থেকে ১ হাজার ঘনফুট পাথর আটক করা হয়। কিন্তু কোন পাথর ব্যবসায়ীর নামে মামলা হয়নি। ফলে পাহাড় কেটে পাথর ও বালু লুটপাট বন্ধ হচ্ছে না। বর্তমানে পাহাড় কেটে পাথর ও বালু লুটপাট চলছেই।

শেরপুরের সহকারি বনসংরক্ষক ড,প্রানতোষ চন্দ্র রায় বলেন পাহাড় কেটে পাথর লুটপাট বন্ধে অভিযান অব্যাহত থাকবে। শ্রীবরদী উপজেলা নির্বাহী অফিসার নিলুফা আক্তারও অভিযান অব্যাহত রাখার কাথা জানান।

শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles