পীরগঞ্জে মৎস্য বিভাগের অভিযান সত্বেও কারেন্ট জালের ব্যবহার অব্যহত রয়েছে

দ্বারা hello@anbnews24.com
পীরগঞ্জে মৎস্য বিভাগের অভিযান সত্বেও কারেন্ট জালের ব্যবহার অব্যহত রয়েছে


খতিয়ার রহমান,পীরগঞ্জ(রংপুর) রংপুরের পীরগঞ্জে সরকারী নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে খাল বিল ও জলাশয়ে অবাধে কারেন্ট জালের মাধ্যমে দেশীয় প্রজাতির মাছ শিকার অব্যহত রয়েছে ।
উপজেলা মৎস্য বিভাগ এ ব্যাপারে অভিযান অব্যহত রাখলেও কার্য্যত আশানুরুপ ফল আসছে না । ফলে দেশীয় প্রজাতির মাছ নিয়ে অনেকটাই উদ্বিগ্ন হয়ে পড়েছে মৎস্য বিভাগ সহ সচেতন মহল ।
এলাকাবাসীর অভিযোগ ও অনুসন্ধানে জানা গেছে, উপজেলার সর্বত্রই খাল,বিল ও নদী নালায় কারেন্ট জালের মাধ্যমে অবাধেই চলছে মাছ শিকার । এতে দেশীয় প্রজাতির ডিমওয়ালা পুঁটি, ট্যাংরা, কই, পাবদা, গড়ই সহ বিভিন্ন প্রজাতির মাছ, ব্যাঙ, সাপ ও কুঁচে সহ অন্যান্য জ¦লজ প্রাণীও উক্ত জালে আটকা পড়ছে। হুমকীর মুখে পড়েছে দেশীয় প্রজাতির মাছ সহ জীববৈচিত্র । পীরগঞ্জের বিশেষ করে মাদারগঞ্জ, পীরগঞ্জ উপজেলা সদর, খালাশপীর,
ভেন্ডাবাড়ী, গুর্জিপাড়া, শানেহাট, চতরা সহ বেশ ক’টি হাট বাজারের ক’জন ব্যাবসায়ীর দোকান থেকে অবাধে কারেন্ট জাল বিক্রি হচ্ছে । আর সে এলাকা গুলিতে কারেন্ট জাল সহজ লভ্য হওয়ায় সাধারন মানুষ এ জাল ক্রয়
করছেন এবং তা দিয়ে অবাধে মাছ শিকার করছেন । অথচ সচেতন মহল মনে করেন হাট বাজার গুলোতে এ জাল বিক্রি বন্ধ করা সম্ভব হলে এ জালের ব্যবহার অনেকাংশে হ্রাস পাবে ।
এ দিকে উপজেলা মৎস্য বিভাগের তথ্য মতে পীরগঞ্জে কারেন্ট জালের বিরুদ্ধে
অভিযান অব্যহত রয়েছে । বর্তমান উপজেলা মৎস্য কর্মকর্তা অত্র উপজেলায় যোগদানের পর চলতি সনের ১৬ জুলাই থেকে ১৭ অক্টোবর ৩ মাসে উপজেলার বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে ৭১ হাজার ২৩০ মিটার জাল আটক করে পুড়ে ফেলা হয়েছে । জরিমানা করা হয়েছে ৯ হাজার টাকা এবং ইতিমধ্যে ২ জনের বিরুদ্ধে মামলাও দায়ের করা হয়েছে ।
এ ব্যাপারে পীরগঞ্জ উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা আমিনুল ইসলাম তার
প্রতিক্রিয়ায় বলেন, জনবল সংকট ও জনগনের সচেতনতার অভাবে কারেন্ট জালের ব্যবহার বন্ধ করা অনেকটাই কষ্টকর হয়ে পড়েছে । তবে আমরা সাধ্যমত চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি ।

শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles