নালিতাবাড়ি উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও লোকবলের অভাবে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা

দ্বারা hello@anbnews24.com
নালিতাবাড়ি উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও লোকবলের অভাবে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা

সিমা পারভিন:শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক ও লোকবলের অভাবে খুড়িয়ে খুড়িয়ে চলছে চিকিৎসা সেবা। এ স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসক প্রায় নেই বললেই চলে। রয়েছে লোকবলের অভাব। ফলে চিকিৎসা সেবা ভেস্তে যেতে বসেছে। প্রায় ৩ লাখ জনগোষ্ঠির চিকিৎসা ভরসাস্হল উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স । কাগজে কলমে এস্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে কনসালটেন্ট থাকার কথা ১০ জন। কিন্ত এ ১০টি পদই শুন্য রয়েছে। জানা গেছে,জনগনের স্বাস্হ্য সেবা নিশ্চিত করতে ৩১ শয্যার উপজেলা স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সেটি ২০১৫ সালে ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হয়। জানা গেছে , স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সটি ৫০ শয্যায় উন্নীত করা হলেও লোকবল বাড়ানো হয়নি। মেডিকেল টেকনলজিষ্ট না থাকায় পরীক্ষা নিরীক্ষার কাজ ব্যাহত হচ্ছে। অপারেশন থিয়েটার থাকলেও চিকিৎসক ও লোকবলের অভাবে তা সম্ভব হচ্ছে না। ইসিজি মেশিন থাকলে চিকিৎসক নেই। ফলে সেবা থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন রোগীরা। মাঠ পর্যায়ে ৩৬ ওয়ার্ডে ৩৬ জন উপসহকারী মেডিকেল অফিসার থাকার কথা থাকলেও আছে ২৬ জন। ১৯ টি পদ শুন্য রয়েছে। ক্যাশিয়ার ও অফিস সহকারীর ২ টি পদই শুন্য। ৪ জন অফিস সহায়কের মধ্যে আছে ২ জন। জুনিয়র মেকানিক্স নেই। ওষুধপত্র রাখার স্টোর নেই। নৈশপ্রহরী না থাকায় স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স চত্বরে বসে নেশাখোরদের আড্ডাখানা। ফেমেলি কোয়াটার গুলো সংস্কারের অভাবে জরাজীর্ণ অবস্তায় বসবাসের অনুপযোগী। নেই বিশুদ্ধ খাবার পানির ব্যাবস্হা। রাস্তার পাশে স্বাস্হ্য কমপ্লেক্স হওয়ায় আর রাস্তাটি স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সের চেয়ে উচু হওয়ায় সামান্য বৃষ্টির পানিতে কমপ্লেক্স মাঠে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ স্বাস্হ্যা কমপ্লেক্সে আগত রোগীরা স্বাস্হ্য বিধি মানছেন না। ওয়ার্ড বয় না থাকায় ব্যাহত হচ্ছে কর্মকান্ড। এ স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসা লাভের আশায় প্রতিদিন শতশত রোগী ভীর করে। কিন্তু চিকিৎসক ও লোকবলের অভাবে রোগীদের সেবা দিতে হিমসিম খেতে হচ্ছে সংশ্লিষ্টদের। ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে উপজেলা স্বাস্হ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ সারওয়াত সালাম বলেন আমি এক বছর পর্বে এ স্বাস্হ্য কমপ্লেক্সে যোগদানের সময় আরো অনেক সমস্যা ছিল। তিনি বলেন তার ব্যাক্তিগত উদ্যোগে বাউন্ডারি থেকে শুরু করে আরো অনেক কিছু করেছেন। পরিবর্তন হয়েছে চিকিৎসা সেবার মান। তিনি আরো বলেন চিকিৎসক চেয়ে আবেদন নিবেদন করা হয়েছে। কিন্তু কোন কাজে আসছে না।

 

 

 

শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles