দুর্গাপুরে ডাক্তার’কে মারধর, আটক ১

দ্বারা hello@anbnews24.com
দুর্গাপুরে ডাক্তার’কে মারধর, আটক ১

দুর্গাপুর (নেত্রকোনা): দুর্গাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিকেল অফিসার ডা. মোঃ মেহেদী হাসান’কে অকথ্য ভাষায় গালাগাল, হুমকি ও মারধরের অভিযোগে আতাউল করিম মাহ্ফুজ মড়ল মড়ল (২৮)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। 

মামলা ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বিবরণে জানা যায়, উপজেলার চন্ডিগড় ইউনিয়নের মড়লবাড়ীর মোঃ নিজাম উদ্দিনের পুত্র আতাউল করিম মাহ্ফুজ মড়ল(২৮) একটি ঔষধ কোম্পানির রিপ্রেজেন্টেটিভ। সে প্রায় সময়ই তাঁর কোম্পানির ঔষধ রোগীর ব্যবস্থাপত্রে লিখার জন্য ঐ ডাক্তারকে বিরক্ত করত। 

অফিস চলাকালীন সময়ে কোন রিপ্রেজেন্টেটিভ হাসপাতালের বহিঃর্বিবিভাগে প্রবেশ করতে পারবেনা বলে সাইনবোর্ড দেওয়া থাকলেও ৬ এপ্রিল সকাল পোনে ১১টার দিকে ঐ রিপ্রেজেন্টেটিভ এর কোন তোয়াক্কা না করে ডাক্তারের সরকারী অফিস ১০৩ নং কক্ষে অনধিকার প্রবেশ করে। তাঁর কোম্পানির ঔষধ রোগীর ব্যবস্থাপত্রে লিখার জন্য ঐ ডাক্তারকে চাপ সৃষ্টি করে। ডাক্তার অপারগতা স্বীকার করলে ঐ রিপ্রেজেন্টেটিভ ডাক্তারের উদ্দেশ্যে গালাগাল করতে থাকে।  ডাক্তার’ও এক পর্যায়ে ক্ষিপ্ত হয়ে তাকে রুমথেকে বেড়িয়ে যেতে বললে উল্লেখিত রিপ্রেজেন্টেটিভ ডাক্তারের শরীরে কিল-ঘুষি মারিয়া জখম করে এবং সরকারী কাজের ব্যাঘাত ঘটায়। 

পরবর্তীতে তাকে দেখে নিবে বলে হুমকি দিয়ে কক্ষত্যাগ করে ঐ রিপ্রেজেন্টেটিভ। 

এ বিষয়ে উপজেলা স্বাস্থ্য ও পঃপঃ কর্মকর্তার লিখিত অনুমতিক্রমে আহত মেডিকেল অফিসার ডা.মোঃ মেহেদী হাসান বাদী হয়ে আতাউল করিম মাহ্ফুজ মড়ল(২৮) এর বিরুদ্ধে দুর্গাপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করলে পুলিশ তাকে ঐদিনই দুপুরে গ্রেফতার করে।

এদিকে গ্রেফতার হওয়া মাহফুজ মড়ল বলেন, আমার বিরুদ্ধে আনিত অভিযোগের সত্যতা নাই তবে শুধুই কথা বিনিময় হয়েছে। 

এ বিষয়ে দুর্গাপুর থানার অফিসার ইন-চার্জ(ওসি) শাহ্ নূর-এ আলম বলেন অভিযোগটি আমলে নেওয়া হয়েছে এর প্রেক্ষিতে উল্লেখিত বিবাদী মাহ্ফুজ মড়ল’কে গ্রেফতার করা হয়। 

শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles