ভাংচুরের অভিযোগ ক্লাবের, পরীমনি বললেন ষড়যন্ত্র

দ্বারা hello@anbnews24.com
ভাংচুরের অভিযোগ ক্লাবের, পরীমনি বললেন ষড়যন্ত্র
এএনবি নিউজ ডেস্ক:এবার রাজধানীর গুলশানের অল কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগে বুধবার (১৬ জুন) চিত্রনায়িকা পরীমনির বিরুদ্ধে গুলশান থানায় সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করা হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে বিষয়টিকে ষড়যন্ত্র বলে মন্তব্য করেছেন তিনি।

এ বিষয়ে গুলশান থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমিনুল ইসলাম সন্ধ্যায় গণমাধ্যমকে বলেন, গত ৭ জুন গভীর রাতে ৯৯৯-এ একটি কলে গুলশান থানা-পুলিশের একটি দল অল কমিউনিটি ক্লাবে যায়। সেখানে গিয়ে দেখা যায়, কথা-কাটাকাটির জেরে ক্লাবে গ্লাস ভাঙচুর করেছেন পরীমনি।

ঢাকা মহানগর পুলিশের গুলশান বিভাগের উপকমিশনার সুদীপ কুমার চক্রবর্তী বলেন, গত ৭ জুন রাতে কমিউনিটি ক্লাবে ভাঙচুরের অভিযোগে তার (পরীমনির) বিরুদ্ধে সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

সম্ভবত ৭ জুন রাতে এই জিডি করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সুদীপ বলেন, অভিযোগ যে, উনি আনঅথরাইজড ওখানে গেছেন। তারপর ক্লাব মেম্বারসদের যে জায়গা ছিল, ওখানে নাকি বসতে চেয়েছেন, তারপর নাকি ভাঙচুর করেছেন। এইগুলো আরকি।

ঘটনার বিবরণ দিয়ে অল কমিউনিটি ক্লাবের প্রেসিডেন্ট কে এম আলমগীর বলেন, ক্লাবের কিছু নিয়মকানুন আছে। কোনো মেল (পুরুষ) যদি ক্লাবে আসে, তাকে ড্রেস কোড মেইনটেইন করতে হয়। কিন্তু সেই মেল ভদ্রলোক হাপপ্যান্ট ও স্যান্ডেল পরে এসেছেন। তখন বেরিয়ে যাচ্ছিলেন আমাদের ফুড অ্যান্ড বেভারেজের ডিরেক্টর এবং ক্লাবের অ্যাডমিন। উনারা ওটা দেখে বলেছেন, আপনি তো ক্লাব রুল ভায়োলেট করেছেন। আপনি তো হাফপ্যান্ট পরে আসতে পারেন না। তো উনারা ক্ষিপ্ত হয়ে যান।  ক্ষিপ্ত হয়ে যাওয়ায় উনাদের আচার-আচরণ গ্রহণযোগ্য না হওয়ায় উনারা (ক্লাব কর্তৃপক্ষ) বলেন, রাত হয়েছে আপনারা চলে যান। কিন্তু উনারা চলে যাচ্ছিল না দেখে আমাদের পরিচালকই ক্লাব থেকে চলে যান।

কে এম আলমগীর আরও বলেন, এরপরে ওই সদস্য যার মাধ্যমে উনারা এসেছিলেন, উনিও উনাদেরকে চলে যাওয়ার জন্য অনেক অনুরোধ করেন। কিন্তু উনারা চলে যাচ্ছিল না দেখে ওই সদস্যও চলে যান। তারপর উনারা অকস্মাৎ ক্ষিপ্ত হয়ে যান। চেঁচামেচি শুরু করেন এবং গ্লাস, অ্যাস্ট্রে ছুড়ে মারতে থাকেন। একপর্যায়ে উনারা ৯৯৯-এ কল করে পুলিশ কল করেন। পুলিশ আসার পরে উনারা দেখতে পান উনি (পরীমনি) এগুলো ছুড়ে মারছেন।

এ বিষয়ে বুধবার রাতে পরীমনি বলেন, এটা কোনও ইস্যু? এটা একটা ষড়যন্ত্র। এতদিন পর এই ঘটনা কেন সামনে এলো?

তিনি বলেন, আমার ওপর নির্যাতনের ঘটনাটি ধামাচাপা দিতেই একটি মহল এটি করছে।

ঢাকার বোট ক্লাবের ঘটনায় আলোচনায় আসেন পরীমনি। এ ঘটনায় আবাসন ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ, অমিসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেন চিত্রনায়িকা পরীমনি। মামলায় এখন পর্যন্ত পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

নড়াইলের মেয়ে পরীমনির ঢাকার চলচ্চিত্রে অভিষেক ঘটে ২০১৫ সালে। এ পর্যন্ত প্রায় দুই ডজন ছবিতে নায়িকা চরিত্রে অভিনয় করেছেন তিনি।

সুত্র: জাতীয়

শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles