নাটোরের সিংড়ায় নৌকার মাঝি হত্যা- যুবক আটক

দ্বারা hello@anbnews24.com
নাটোরের সিংড়ায় নৌকার মাঝি হত্যা- যুবক আটক
 সিপন আলী, নাটোর প্রতিনিধি :
 
নাটোরের সিংড়ার  নৌকার মাঝি  হত্যার ঘটনায়  বাইজিদ বোস্তামী (১৮) নামের একযুবকে আটক করেছে পুলিশ । পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে আটক হওয়া যুবক  পুলিশের নিকট হত্যাকান্ডের কথা স্বীকার করে জবান বন্দি দিয়েছেন। হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত  থাকা বাঁকি দুইজন পলাতক রয়েছে ।
 
জেলা পুলিশ সোমবার দুপুরে  এক  সংবাদ সম্মেলন পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয়, নিহত আরজু নৌকার মাঝি সিংড়া উপজেলার চামারি ইউনিয়নের আনন্দনগর গ্রামের কদম আলীর ছেলে। অভিযুক্ত বাইজিদ বোস্তামী  গুরুদাসপুর উপজেলার বিলহরি গ্রামের নাছির বোস্তামীর ছেলে।
 
সংবাদ সম্মেলণে  জেলা পুলিশ বলেন , আরজু মাঝির প্রতিবেশী এক স্কুলছাত্রীর সাথে বাইজিদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সূত্র ধরে বাইজিদ ওই গ্রামে ঘন ঘন যাতায়াত শুরু করে। মেয়ে ঘটিত ওই বিষয় নিয়ে আনন্দনগর গ্রামে বাইজিদ ও তার তিন বন্ধুর সাথে আরজু মাঝির বাকবিতন্ডা হয়। একপর্যায়ে হাতাহাতির ঘটনাও ঘটে।
 
 বাইজিদ স্বীকারোক্তি মূলক জবানবন্দিতে জানিয়েছে, মূলত: প্রেমে বাধা দিয়ে তাদের লাঞ্চিত করার প্রতিশোধ হিসাবেই আরজু মাঝিকে ৩ বন্ধু মিলে কুপিয়ে হত্যা করেছে।
 
এসপি লিটন কু্মমার সাহা আরো জানান, গত ২৬ আগষ্ট চলনবিলের তিশি খালী ভ্রমনের জন্য কৌশলে ৭’শ টাকায় আরজু মাঝির নৌকা ভাড়া নেয়  বাইজিদ ও তার বন্ধুরাপূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী সন্ধার পর আরজু মাঝি কে নিয়ে  নৌকায় তারা ভ্রমণের উদ্দেশ্যে রওনা দেন। নৌকাটি গুরুদাসপুর উপজেলার হরদমা বিলে পৌঁছালে নৌকা থামিয়ে বাইজিদ ও তার বন্ধুরা মিলে আরজু মাঝির পা ও গলা ধরে রশি দিয়ে নৌকার সাথে বেধে ফেলে। এসময়  তারা ১০ হাজার মুক্তিপন দাবি করে । টাকা আসতে দেরি হওয়ায় বাইজিদের একবন্ধু চাইনিজ কুড়াল দিয়ে আরজু মাঝির মাথার পিছনে কুপিয়ে হত্যা করে লাশ পানিতে ফেলে দেয়।
 
সিংড়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারি পুলিশ সুপার জামিল আকতার জানান, তাঁর নেতৃত্বে হত্যার রহস্য উদঘাটন করে বাইজিদ  কে  প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়।
রোববার দিবাগত রাত সাড়ে১২টার দিকে বাইজিদকে গুরুদাসপুর উপজেলার বেড়গঙ্গারামপুর গ্রাম থেকে আটক  করা হয়েছে। তার অপর দুই বন্ধু পলাতক রয়েছে।পলাতক দুই আসামী গ্রেফতারের জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।
 গত ২৬ আগষ্ট সিংড়ার আনন্দ নগর গ্রামের আরজু মাঝি নিখোঁজের৩৬ ঘন্টা পর গুরুদাসপুরের বিলসা বিল থেকে ভাসমান লাশ উদ্ধার করেন  পুলিশ।
 
 
 
 
 
শেয়ার করুন
0 মন্তব্য

মতামত দিন

Related Articles